Home / খেলাধুলা / খেলা ছেড়েই সিনেমা বানাবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো !

খেলা ছেড়েই সিনেমা বানাবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো !

ফুটবলের সর্বশেষ খবর; কারো নেশা আর কারো বা পেশা। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ফুটবলকে নেশা অর্থাৎ উপভোগের জায়গাটাতেই রাখতে চান।

খেলোয়াড়ি জীবন শেষের পর অন্য কোনো ভূমিকায় জড়িত থাকতে চান না ফুটবলের সঙ্গে, বরং বাড়াতে চান ব্যবসায়িক প্রকল্পগুলোকে। গ্লোব সকার অ্যাওয়ার্ড জেতা রোনালদো স্কাই স্পোর্টসের ইতালিয়ান সংস্করণের জন্য সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরোকে। সেখানেই সাবেক এই ইতালিয়ান তারকাকে সিআর সেভেন জানিয়েছেন, খেলা ছাড়ার পর হোটেল ব্যবসা, ছবি বানানো—এসব নিয়েই থাকতে চান। অর্থাৎ ফুটবল দুনিয়ার সঙ্গে সম্পর্কটা যথাসম্ভব কমই রাখতে চান এই পর্তুগিজ।

লম্বা সাক্ষাৎকারের অনেকটুকুই এখনো প্রকাশ করেনি স্কাই স্পোর্টস। যতটুকু প্রকাশ করেছে, সেটুকুই বিস্ফোরক! ৩২ বছর বয়সী রোনালদো শুনতে পাচ্ছেন শেষের শব্দ, তাই এখন থেকেই সব কিছু গুছিয়ে নিয়েছেন, ‘এখন আমার মনোযোগ শুধু ফুটবলের দিকেই। যদিও স্পষ্ট করেই জানি, আগে হোক আর পরে হোক অবসর নেওয়ার মুহূর্তটি এসেই যাবে। আমি নিশ্চিত ফুটবল ছাড়ার পর আমার জীবন হবে সুন্দর। আমি টাকার কথা বলছি না, তখন আমি আমার ইচ্ছামতো সব কিছু করার স্বাধীনতা পাব।

সেই ইচ্ছার ভেতর আছে অনেক কিছুই, জানা গেল রোনালদোর কাছ থেকেই, ‘আমি তো চাই ছবি বানাব! আমার হোটেল আছে, জিম আছে, নাইকির সঙ্গে একটা পোশাকের ব্র্যান্ড আছে…আমি তো নিজেকে একজন ব্যবসায়ী হিসেবেই দেখতে পাই। ’জুভেন্টাসেই পেশাদারি ক্যারিয়ারের বেশির ভাগ সময় কাটানো দেল পিয়েরোর সতীর্থ হতে পারতেন রোনালদো, ম্যানইউতে যোগ দেওয়ার আগে তুরিনে আসার একটা সুযোগও যে তৈরি হয়েছিল সেটাও মনে করলেন রিয়াল তারকা, ‘জুভেন্টাস আমার ব্যাপারে আগ্রহী শুনে খুবই খুশি হয়েছিলাম; কারণ এটা একটা ঐতিহ্যবাহী ক্লাব।

তবে শেষ পর্যন্ত আমি ম্যানইউতেই যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। আমার সিরি এ-র চেয়ে প্রিমিয়ার লিগ বেশি ভালো লাগত। ’ স্পোর্তিং লিসবন থেকে ম্যানইউ ঘুরে রিয়ালে, যাত্রাপথটা সংক্ষিপ্ত হয়ে সরাসরি রিয়ালেও খেলার সম্ভাবনাও নাকি তৈরি হয়েছিল, ‘রিয়ালও নাকি আগ্রহ দেখিয়েছিল। তবে আমি সঠিক সিদ্ধান্তটাই নিয়েছিলাম। এ জন্য আমি এজেন্ট হোর্হে মেন্দেসের কাছে কৃতজ্ঞ। ’ মার্কা

Check Also

নেইমারের সবচেয়ে খারাপ মুহূর্ত

নেইমারের সবচেয়ে খারাপ কিছু মুহূর্ত

২০১৪ ফুটবল বিশ্বকাপটা ব্রাজিল ঘরের মাঠে খেলে। যেখানে দেশটির প্রত্যাশা ছিল ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ শিরোপা …